Rate this post

এক সময় আমাদের দেশে অনেক ঘটক ছিল। অনেক আগে থেকেই বিয়ের ট্রেডিশন হিসেবে ঘটকের মাধ্যমে পাত্র-পাত্রী দেখা ও শুভ বিবাহের কাজ সম্পন্ন হত। আগে দেখা যেত ঘটকেরা মুখভর্তি পান চিবিয়ে, বগলে ছাতা ও কাঁধে ব্যাগ নিয়ে হাঁটতেন। সবসময় তাদের ব্যাগের মধ্যে থাকতো পাত্র/পাত্রীর ছবি। তবে বর্তমান ডিজিটাল যুগে ঘটকের মাধ্যমে পাত্র পাত্রীর দেখার সিষ্টেম মোটেও সুখের নয় আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত ছেলে মেয়েদের জন্য। আর তাদের জন্যই বর্তমানে রয়েছে অনলেইনে ম্যারেজ মিডিয়া সার্ভিস।

বিয়ের প্রস্তুতি হিসেবে সবার আগে আমাদের যে কাজটি করতে হয় তা হল সঠিক পাত্র/পাত্রী নির্বাচন। ’বিয়ে’ শব্দটা শুনতে খুব সহজ মনে হলেও বিষয়টা আসলে খুব একটা সহজ নয়। অনেকেই হয়তো বিয়ে করার কথা ভাবছেন, কিন্তু পছন্দের সঙ্গী কিভাবে খুঁজবেন বুঝতে পারেন না। কারণ বিয়ের পর যার সাথে সারাটা জীবন কাটাবেন তাঁকে অবশ্যই হতে হবে আপনার মনের মত।

তাই বিয়ের জন্য যোগ্যতা এবং চাহিদা অনুযায়ী পাত্র-পাত্রী খোঁজা কম ঝামেলার কাজ নয়। ক্ষেত্রবিশেষে দেখা গেছে মাসের পর মাস কেটে গেলেও পছন্দের পাত্র-পাত্রী মেলাতে পারেন না অনেকেই। পাত্র-পাত্রী খোঁজার বিষয়টাকেই আগের থেকে বর্তমানে অনেক সহজ করে দিয়েছে ম্যারেজ মিডিয়া।

প্রযুক্তির কল্যাণে আমাদের জীবন এখন প্রতিনিয়ত বদলে যাচ্ছে। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে প্রায় সবধরনের অনলাইন ভিত্তিক ব্যবসাই এখন গ্রাহকদের কাছে জনপ্রিয়। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী ক্রয় বিক্রয় থেকে শুরু করে বন্ধুত্ব, প্রেম-ভালোবাসার মত বিষয়গুলোকে দখল করে নিয়েছে ফেসবুক, ইউটিউব ও ইন্সটাগ্রামের মত জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়াগুলো।

সোশ্যাল মিডিয়াগুলো এমন একটি মাধ্যম যেখানে একটিমাত্র ক্লিকেই সব খবরাখবর চলে আসে আপনার হাতের মুঠোয়। সুতরাং প্রাত্যাহিক জীবনে বেঁচে থাকার মত সবকিছুই যেহেতু এখন অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে তাহলে ভবিষ্যৎ জীবনসঙ্গী খোঁজা অর্থাৎ বিয়েটা কেনইবা বাকি থাকবে?

আদর্শ জীবনসঙ্গী খুঁজতে

 জীবনসঙ্গী খুঁজে পেতে ম্যারেজ মিডিয়া কেন দরকার?

ছেলেরা সাধারণত বিয়ের জন্য এমন কাউকে চায় যে আপন করে নেবে পুরো পরিবারকে, সুখ দুঃখে থাকবে পাশে আর পথচলাটা করে দেবে সহজ। আবার কথায় বলে, মেয়েরা বিয়ের স্বপ্ন দেখা শুরু করে অনেক ছোট বয়স থেকেই। আর জীবনসঙ্গী নিয়ে তাদের মনের গভীরে তৈরী হয় অনেক অনেক স্বপ্নের। তবে এমন মনের মানুষ খুঁজে পাওয়া নিয়ে যেমন মনে থাকে সংশয় তেমনি ভয়ও থাকে ভুল সিদ্ধান্তের। এসব দ্বিধাপূর্ন সিদ্ধান্তটি সহজ করে দিতে পাশে আছে অনলাইন ম্যারেজ মিডিয়া।

ব্যস্ততম এই শহরে সময়ের সাথে সাথে মানুষগুলোও কেমন যেন বেশ যান্ত্রিক হয়ে যাচ্ছে। যেখানে সম্পর্কগুলোই ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে, সেখানে নতুন কোনো স্থায়ী সম্পর্ক গড়ে ওঠা বেশ কঠিন। বিয়ের মত একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হওয়া উচিত সহজলভ্য। কিন্তু কর্মব্যস্ততা আমাদের সম্পর্কগুলোকে দিন দিন যান্ত্রিক ও পরস্পরের মধ্যে একধরনের দূরত্ব সৃষ্টি করে দিচ্ছে। তবে এই সমস্যার একটি সহজ ও কার্যকর সমাধান হল ম্যারেজ মিডিয়া।

বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মানুষ শত ব্যস্ততার মাঝে থাকলেও স্মার্টফোনের মাধ্যমে কিছু সময়ের জন্য হলেও ঢুঁ মারেন ইন্টারনেট জগতে কি হচ্ছে তা দেখার জন্য। এখনতো অনেকেই আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধু-বান্ধবদের সাথে যোগাযোগ করেন হোয়াটসঅ্যাপ, ইমো বা ভাইবারের মত অ্যাপসগুলো দিয়ে। তাহলে জীবনসঙ্গী খোঁজার মাধ্যমটাও যদি হয় অনলাইন ম্যারেজ মিডিয়া তাহলেই বা ক্ষতি কি?

জেনে নিন বর্তমান সময়ে ম্যারেজ মিডিয়া এর ভূমিকা কেন এত গুরুত্বপূর্ণ-

১. কম খরচে ম্যারেজ মিডিয়া সেবা

আগেকার ট্রেডিশন অনুযায়ী বিয়ের জন্য ঘটকের মাধ্যমে পাত্র-পাত্রী দেখার মধ্যে ছিল অনেক সীমাবদ্ধতা। একজন ঘটকের কাছে সর্বোচ্চ ৮-১০ জন্য পাত্র-পাত্রীর ছবি পাওয়া যেত। আবার অনেক সময় ঘটক অনেক তথ্য গোপনও রাখতেন। এতে করে পাত্র-পাত্রী দেখার ক্ষেত্রে লম্বা সময় অপেক্ষা করতে হত আর সেই সাথে গুণতে হত বড় অঙ্কের টাকা। অন্যদিকে ম্যাট্রিমনিয়াল সাইটে আপনি নামমাত্র ফি দিয়েই ম্যাচমেকিং সেবা নিতে পারবেন।  অনলাইন ম্যাট্রিমনিয়াল সাইটের ডাটাবেজ থেকে আপনি আপনার পছন্দমত জীবনসঙ্গী খুঁজে নিতে পারবেন।

২. সময় সাশ্রয়ী

ম্যাট্রিমনিয়াল সাইটে পাত্র-পাত্রীর ছবি, জীবনবৃত্তান্ত, পছন্দ-অপছন্দ সবকিছুই জানা যায় এক ক্লিকেই। এতে করে আপনি খুব সহজেই আপনার মনের মত জীবনসঙ্গী খুঁজে নিতে পারবেন। অনলাইন ম্যারেজ মিডিয়া এর মাধ্যমে আপনি একেবারেই কম সময়ে বাসা, অফিস কিংবা যেকোনো জায়গা থেকে আপনার স্মার্টফোনটির মাধ্যমেই পাত্র/পাত্রীর ছবি ও বায়োডাটাসহ বিস্তারিত তথ্য দেখে নিতে পারবেন, এমনকি পছন্দ হলে সাথে সাথে ম্যাসেজ কিংবা ভিডিও কল করতে পারবেন। প্রাথমিকভাবে যোগাযোগের জন্য আপনাকে সময় ব্যয় করে কোথাও যেতে হচ্ছে না বা কোন অতিরিক্ত খরচ করতে হচ্ছে না। অনলাইনে পাত্র-পাত্রীর পরিচয়, সাক্ষাৎ, আলাপ, বোঝাপড়া, নিজেদের মধ্যে ভাল একটা সম্পর্ক তৈরির মাধ্যমে পরিণয়ে আবদ্ধ হওয়া সবই এখন চলছে অনলাইনে।

৩. কুইক সার্চ ও ফিল্টারিং অপশন

অনলাইন ম্যারেজ মিডিয়া বা ম্যাট্রিমনি সাইট ব্যবহার করা অনেক সহজ এবং আপনি আপনার পছন্দের ও চাহিদার সাথে মিলে যায় এরকম হাজার হাজার সম্ভাব্য পাত্র বা পাত্রীর বায়োডাটা দেখতে পারবেন। ম্যারেজ ওয়েবসাইটে ঘটকদের তুলনায় অনেক বেশি বিয়ের জন্য আগ্রহী পাত্র বা পাত্রীর প্রোফাইল বা বায়োডাটা দেখতে পারবেন। এখানে সম্পূর্ণ আপনার পছন্দকে গুরুত্ব দেয়া হয়।

ম্যারেজ ওয়েবসাইটে আপনি কুইক সার্চ ও ফিল্টারিং অপশন ব্যবহার করে খুব অল্প সময়ে চাহিদা অনুযায়ী যেকোনো ধর্ম, বর্ণ, বয়স, শিক্ষাগত যোগ্যতা ও পেশাগত যোগ্যতার পাত্র-পাত্রী খুঁজে নিতে পারবেন এব তাদের পছন্দ অপছন্দ সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন। প্রাথমিক তালিকা থেকে ছবি দেখার পর আগ্রহী পাত্র-পাত্রীর নামে ক্লিক করলে তার পাবলিক তথ্যগুলো দেখতে পারবেন। অর্থাৎ এখানে আপনি অপ্রয়োজনীয় প্রোফাইলগুলো এড়িয়ে যেতে পারবেন। যার ফলে আপনাকে কষ্ট করে ও সময় ব্যয় করতে হবে না।

৪. শতভাগ নিরাপত্তা

অনলাইনে যেকোন সেবা গ্রহণের ক্ষেত্রে অনেকেই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগে থাকনে। আর অনলাইন ম্যাট্রিমনিয়াল সাইটে যেহেতু নিজের ব্যক্তিগত, পারিবারিক ও ক্ষেত্র বিশেষে পেশাগত তথ্যগুলো দিতে হয়, সেক্ষেত্রে অনেকেই সেবা নেয়ার ক্ষেত্রে নিরাপত্তাহীনতার কারণে একটু পিছিয়ে যান। তবে চিন্তার কোনই কারণ নেই। আপনি যে তথ্যগুলো দেন, ম্যাট্রিমনিয়াল ওয়েবসাইটে আপনার তথ্যগুলোর শতভাগ গোপনীয়তা বজায় থাকে।

ম্যাট্রিমনিয়াল সাইটে প্রত্যেক পাত্র-পাত্রীর তথ্যাবলী দু’ভাবে থাকে। কিছু তথ্য থাকে ‘পাবলিক’ এবং কিছু তথ্য থাকে ‘প্রাইভেট’ ভাবে। আপনি আপনার ইচ্ছামত যেকোন তথ্য ’পাবলিক’ বা ‘প্রাইভেট’ করে রাখতে পারবেন। তাই কেউ চাইলেই আপনার ব্যক্তিগত তথ্য দেখতে পারে না। প্রাইভেট তথ্য দেখার জন্য আপনার কাছে বিশেষ ‘অ্যাক্সেস রিকুয়েস্ট’ পাঠাতে হবে। এ অনুরোধ গৃহীত হওয়ার পরই কেবল আপনার ‘প্রাইভেট’ তথ্যগুলো আরেকজন জানতে পারবেন। সুতরাং এক্ষেত্রে প্রতারিত হবার কোনোই সম্ভাবনা নেই।

৫. বিশেষ সুবিধা

অনেক ম্যারেজ মিডিয়া আছে যেখানে আপনি চাইলেই তারা শুধুমাত্র আপনার জন্য একজন প্রতিনিধি নিযোগ করে দেবেন যিনি। এক্ষত্রে আপনাকে কোন কাজই করতে হবে না। দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিনিধি আপনার পার্সোনাল অ্যাসিন্টেন্ট হিসেবে যাবতীয় কাজগুলো করবেন। আপনার বায়োডাটা সবসময় আপডেট রাখবেন ও চাহিদমত প্রতিদিন আপনাকে ফোন/ইমেইলে উপযুক্ত পাত্র-পাত্রীদের প্রোফাইল পাঠাবেন। তাদের মধ্যে কাউকে আপনার পছন্দ হলে প্রতিনিধি আপনাকে পাত্র-পাত্রী অথবা তার অভিভাবকের সাথে আপনার যোগাযোগের ব্যবস্থা করে দেবেন।

তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া- সবচেয়ে জনপ্রিয় ম্যাচমেকিং এজেন্সি

মনের মত ও পছন্দের প্রফেশনের জীবনসঙ্গীর সন্ধান দিতে এখন আপনার পাশে আছে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া। আমরা আপনাকে খুজে দিতে পারি আপনার জীবন চলার পথের সবচেয়ে আপন মানুষটির। যে শুধু আপনাকে না, আপন করে নেবে পুরো পরিবারকে। আপনি আমাদের অনলাইন পোর্টালে ফ্রি রেজিস্ট্রেশন করে ঘরে বসে খুব অল্প সময়ে উপযুক্ত পাত্র/পাত্রী খুঁজে নিতে পারবেন।

আমাদের অভিজ্ঞ টিম রেজিস্ট্রেশনকৃত প্রতিটি পাত্র-পাত্রীর জাতীয় পরিচয়পত্র, প্রবাসীদের ক্ষেত্রে পাসপোর্ট, মোবাইল নম্বর, পেশা ও শিক্ষাগত যোগ্যতাসহ যাবতীয় বিষয়াবলী পুঙ্খানুপুঙ্খ যাচাই-বাছাইয়ের পরই প্রোফাইলগুলো অ্যাক্টিভেট করে থাকেন।

আমাদের রয়েছে-

  • ২০,০০০ এর বেশি অরিজিনাল ভেরিফাইড প্রোফাইল
  • ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, ডক্টরেট, বিসিএস ক্যাডার ও ব্যাংকারসহ ৮০ টির বেশি প্রফেশন
  • প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী, শিল্পপতি, সরকারী চাকুরীজীবী প্রোফাইল
  • অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে সেটেল্ড প্রবাসী ও সিটিজেন পাত্র-পাত্রী
  • ডিভোর্স, বন্ধ্যা ও বয়স্কসহ সকল ধর্মের প্রোফাইল
  • এছাড়া ম্যাচমেকিংয়ে আমাদের রয়েছে ১০ বছরেরও বেশি অভিজ্ঞতা

আমাদের সফল ম্যাচমেকিং গুলো দেখতে ক্লিক করুন এখানে

পরিশেষে

নিজের পছন্দ হোক কিংবা পারিবারিক পছন্দে, বিয়ের ক্ষেত্রে তাড়াহুড়া করবেন না মোটেই। জীবনসঙ্গী এমন একজন মানুষ হতে হবে, যার সাথে আপনার ব্যক্তিগত চাওয়া-পাওয়া গুলো মেলে। জীবনের পথে দুজনের ভাবনা খাপে খাপে মিলে না গেলে দাম্পত্যে ভালোবাসা খুঁজে পাওয়াটা খুব কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। তাই ’পারফেক্ট’ জীবনসঙ্গীকে খুঁজে পেতে আজ-ই যোগাযোগ করুন তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া এর সাথে। শুভ হোক আপনাদের নতুন জীবনের পথচলা।

বিয়ে সংক্রান্ত যেকোনো তথ্য, সেবা, এবং পরামর্শ পেতে যোগাযোগ করুন তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার সাথে।
কল করুনঃ+880-1972-006691 অথবা +88-01782-006615 এ।
আমাদের মেইল করুন taslima55bd@gmail.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here