Rate this post

সফলতার গল্প পড়তে বা শুনতে কার না ভালো লাগে? অন্যের সফলতার গল্প আমাদের অফুরন্ত প্রেরণা যোগায়, নতুন করে বাঁচতে শেখায়, আরেকবার ঘুরে দাঁড়ানোর শক্তি দেয়। কঠোর পরিশ্রম আর আত্মবিশ্বাস নিয়ে লেগে থাকলে যেকোনো কাজে সফল হওয়া যায়। ব্যর্থতাকে পেছনে রেখে নিজের শক্তি-সামর্থের উপর বিশ্বাস ও আস্থা রেখে সামনে এগিয়ে গেলে সাফল্য আপনার পায়ের কাছে এসে ধরা দেবে। আজকের এই পোস্টে আপনাদের জানাবো বাংলাদেশে অনলাইন ঘটক হিসেবে পরিচিত তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার ১০ বছরের সফলতার গল্প এবং এই কোম্পানি প্রতিষ্ঠার পেছনে একজন সফল নারী উদ্যোক্তার কাহিনী।

ম্যারেজ মিডিয়া প্রতিষ্ঠার পেছনের গল্প

ম্যাট্রিমনিয়াল এজেন্সী তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার প্রতিষ্ঠাতা হলেন তাসলিমা আক্তার। ম্যারেজ মিডিয়ার শুরুটা করেছিলেন ২০১১ সালে তাসলিমা আক্তার একাই। সাথে কেউ ছিলো না, কিন্তু মহিলা উদ্যোক্তা হবার কারণে ছিলো শুধু সমাজের মানুষের নানারকম নেতিবাচক মন্তব্য। কিন্তু মানুষের কটু কথায় তিনি থেমে থাকেননি, ছুটে গিয়েছেন মানুষের নানা সুবিধা-অসুবিধায়। হাজারো ঘাত-প্রতিঘাত পার করে তিনি সবার ঘরে ঘরে তার প্রতিষ্ঠানের বার্তা দিতে শুরু করেন। ইতোমধ্যেই তাসলিমা আক্তার একাধারে মানবাধিকার ও সমাজকর্মী হিসেবে সমাজে স্ব-অবস্থান তৈরী করে নিয়েছেন। বর্তমানে ম্যাচমেকিং এজেন্সীতে ৫০ জনেরও বেশী কর্মকর্তা ও কর্মচারী আছেন। এ প্রতিষ্ঠানটি হয়ে উঠেছে বহু তরুণের কর্মসংস্থানের নতুন ঠিকানা।

তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া আসলে কি কাজ করে

তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া মূলত অনলাইন ঘটক হিসেবে গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী বিবাহযোগ্য পাত্র-পাত্রীদের সন্ধান দেয়। অনলাইনে সময় দেন অথচ তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার নাম শোনেনি এমন লোক খুব কমই আছে। ট্রেডিশনাল ঘটক এর মাধ্যমে বিয়ের উপযুক্ত পাত্র-পাত্রী খুঁজতে অনেক সীমাবদ্ধতা থাকে আর এর টাকাও খরচ হয় অনেক। কিন্তু আমাদের ম্যারেজ সাইটের মাধ্যমে আপনি নামমাত্র রেজিস্ট্রেশন ফি দিয়েই ম্যাচমেকিং সেবা নিতে পারবেন। আমাদের অনলাইন প্লাটফর্মে এখন ২৫ হাজারের বেশী অরিজিনাল পাত্র-পাত্রী প্রোফাইল রয়েছে যেখানে আপনি পাত্র-পাত্রীর ছবি, জীবনবৃত্তান্ত,  শিক্ষাগত যোগ্যতা, পেশা ইত্যাদি সবকিছুই জানতে পারবেন।

আমাদের ওয়েবসাইটে শুধুমাত্র তাদেরই প্রোফাইল রয়েছে যারা বিয়ের ব্যাপারে সিরিয়াস। এজন্য আমাদের সাইটের মাধ্যমে প্রতারিত হবার কোনো সম্ভাবনাই নেই। আমাদের ম্যারেজ মিডিয়াতে পাত্র-পাত্রীদের প্রোফাইল পছন্দ হলে সাথে সাথে ম্যাসেজ, অডিও এবং ভিডিও কল করতে পারবেন। অনলাইনের পাশাপাশি তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার অফলাইন সার্ভিসও রয়েছে। সেক্ষেত্রে আপনাকে অফিসে এসে কি ধরনের পাত্র-পাত্রী চাচ্ছেন তা জানিয়ে বায়োডাটা ও ছবি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। অনলাইন এবং অফলাইনে পাত্র-পাত্রীর বদলে অভিভাবকরাও রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

আদর্শ জীবনসঙ্গী খুঁজতে

তাছাড়া আপনি চাইলে আমাদের একজন কর্মকর্তা আপনার পার্সোনাল অ্যাসিন্টেন্ট হিসেবে কাজ করবেন। তিনি আপনার বায়োডাটা সবসময় আপডেট রাখবেন ও চাহিদমত প্রতিদিন আপনাকে ফোন/ইমেইলে উপযুক্ত পাত্র-পাত্রীদের প্রোফাইল পাঠাবেন। তাদের মধ্যে কাউকে আপনার পছন্দ হলে আমাদের প্রতিনিধি আপনাকে পাত্র-পাত্রী অথবা তার অভিভাবকের সাথে আপনার যোগাযোগের ব্যবস্থা করে দেবেন।

তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ায় ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, বিসিএস ক্যাডার থেকে শুরু করে সচিব, প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী, শিল্পপতিসহ সব ধরনের প্রোফাইল রয়েছে। দেশের বাইরে অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপ ও আমেরিকার সেটেল্ড প্রবাসী ও সিটিজেন পাত্র-পাত্রীর প্রোফাইল পাওয়া যাবে। ম্যারেজ মিডিয়া সার্ভিস ছাড়াও আমরা এখন ওয়েডিং প্ল্যান, ওয়েডিং ফটোগ্রাফি, ওয়েডিং ভিডিও, এবং মেকাপসহ বিয়ের সব ধরনের সেবা দিচ্ছি।

জনপ্রিয় পত্রিকাগুলোতে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার সফলতার গল্প

বর্তমানে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশী পাত্র-পাত্রীর বায়োডাটাসহ ১নং ম্যারেজ মিডিয়া হিসেবে সবার কাছে পরিচিত। এর মূল প্রমাণ পাওয়া যায় জাতীয় দৈনিক পত্রিকাগুলোতে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া সম্পর্কে প্রকাশিত সংবাদগুলোতে। বেশ কিছু জনপ্রিয় পত্রিকা এবং তাদের অনলাইন নিউজ পোর্টালে ম্যারেজ মিডিয়া সেবায় আমাদের সফলতার গল্প ফিচার করা হয়েছে।

১. গত ২৯ মে, ২০২১ তারিখে জাতীয় ’দৈনিক জনকন্ঠ’ পত্রিকার ’আইটি.কম’ পাতায় ’অনলাইন ম্যাট্রিমনিয়াল নিয়ে তাসলিমার উদ্যোগ’ শিরোনামে একটি ফিচার প্রকাশিত হয়। অনলাইনে ফিচারটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

সফলতার গল্প

২. জনপ্রিয় ইংরেজি দৈনিক ’The Business Standard’ পত্রিকাতেও আমাদের নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এটি প্রকাশিত হয় গত ২২ মে, ২০২১ তারিখে ’Panorma’ পাতায়। ফিচারটির শিরোনাম ছিলো ’How do real-life cupids arrange marriages?’ অনলাইনে লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন

The Business Stadard

৩. ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের সফলতার গল্প এবং সমাজের সার্বিক উন্নয়নের চিত্র নিয়ে বাংলাদেশের একমাত্র অনলাইন নিউজ পোর্টালের নাম ’উদ্যোক্তা বার্তা’। তাদের ওয়েবসাইটে ২৭ এপ্রিল, ২০২১ তারিখে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার প্রতিষ্ঠাতা তাসলিমা আক্তারের উদ্যোগ এবং তার প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম নিয়ে বিশেষ সংবাদ প্রকাশ করে। এই সংবাদটি প্রকাশ করা হয়  ’উদ্যোক্তা সফলতা’ পেইজে এবং শিরোনাম ছিলো ’সবার জন্য বিয়েকে সহজীকরণের ইচ্ছা থেকে উদ্যোক্তা তাসলিমা’। অনলাইনে লেখাটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে

Uddokta Barta

৪. ‘সম্পর্কের সমন্বয় করছেন তাসলিমা’ শিরোনামে ‘দৈনিক ইত্তেফাক’ পত্রিকায় একটি ফিচার প্রকাশিত হয় ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ তারিখে। লিখাটি প্রকাশিত হয় ‘প্রজন্ম’ পাতায়। এই সংবাদে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার ১০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান এবং তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়াকে নিয়ে প্রতিষ্ঠাতা তাসলিমা আক্তারের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাগুলো তুলে ধরা হয়। এই ফিচারটির জন্য দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার কাছে আমরা বিশেষভাবে কৃতজ্ঞ। অনলাইনে লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

Daily Ittefaq

৫. জাতীয় ‘দৈনিক কালের কন্ঠ’ পত্রিকায় ‘বিয়ের যত কারিগর’ শিরোনামে বাংলাদেশের জনপ্রিয় কিছু ওয়েডিং প্ল্যানার এবং তার সাথে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার কার্যক্রম প্রকাশিত হয়। লিখাটি প্রকাশিত হয় ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ তারিখে। সংবাদটি পড়তে পারবেন এখানে

সফলতার গল্প

টিভি চ্যানেলে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া সফলতার গল্প

পত্রিকার পাশাপাশি বিভিন্ন টিভি চ্যানেলেও আমাদের সফলতার গল্পগুলো প্রচারিত হয়েছে। এর মধ্যে ‘Channel 24’ এর একটি ভিডিও দেখতে পারেন-

তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার প্রতিষ্ঠাতা তাসলিমা আক্তার সমাজের কল্যাণে তার উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য ২০১৬ সালে ’ঢাকা সংগীত একাডেমী’ থেকে ‘গুণীজন সম্মাননা’ পুরস্কার পান। এছাড়াও আমরা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বেশ কিছু পুরস্কার পেয়েছি। বর্তমানে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া দেশের সবচেয়ে বেশি পাত্র-পাত্রীর বিয়ে সম্পন্নকারী সবচেয়ে সফল ম্যাট্রিমনিয়াল প্রতিষ্ঠান। আমাদের প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিয়ে হওয়া পাত্র-পাত্রীদের মজার গল্পগুলো পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার সফলতার ৯ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান

২০১১ সালে ম্যাট্রিমনিয়াল সার্ভিস নিয়ে যাত্রা শুরু করা তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া প্রতিষ্ঠার ৯ম বছরে কোম্পানীর সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নিয়ে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ৯ বছর পূর্তি উপলক্ষে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার অফিস সাজানো হয়েছিল ফুল আর বেলুন দিয়ে। সবাই মিলে কেক কেটে ৯ বছর পূর্তি উদযাপন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিশেষ বক্তব্য রাখেন কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তাসলিমা আক্তার। গ্রাহকদের ভালোভাবে ম্যাচমেকিং সেবা দেয়ার মাধ্যমে সবাই তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়াকে আরও সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এ আনন্দ আয়োজনে সবার জন্য ডিনারের ব্যবস্থা করা হয়েছিলো উত্তরা পার্টি সেন্টারের ভুতের আড্ডা রেষ্টুরেন্টে। নিচের ভিডিওতে ৯ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানের বিশেষ ঝলক দেখুন-

সফলতার ১০ বছরে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া

২০২১ সালের জানুয়ারিতে ম্যাচমেকিং সার্ভিস নিয়ে দীর্ঘ ১০ বছর পূর্ণ করে তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়া। জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনের মাধ্যমে পালিত হয় সফলতার ১০ম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান। আমাদের সম্মানিত গ্রাহকদের ভালোবাসা এবং শুভাকাঙ্খিদের অনুপ্রেরণায় আমরা এতদূর আসতে পেরেছি। প্রতিষ্ঠার পর অনেক বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করে, নানা চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে সফলতার সাথে ১০ বছর পূর্ণ করতে পেরে আমরা সত্যিই গর্বিত। গ্রাহকদের অনুপ্রেরণায় ম্যারেজ মিডিয়া সার্ভিস নিয়ে আমরা আরও দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে চাই। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, আমন্ত্রিত অতিথিদের বক্তব্য, প্রধান নির্বাহীর বক্তব্যসহ বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ সারা দিনব্যাপী বিভিন্ন আনন্দমূলক কার্যক্রমের মাধ্যমে কোম্পানির কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা সফলতার ১০ বছর উদযাপন করেন। ১০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানের বিশেষ কিছু মুহূর্ত দেখুন নিচের ভিডিওতে-

তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার ভবিষ্যত পরিকল্পনা

তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার মাধ্যমে ম্যাট্রিমনিয়াল সার্ভিসকে দেশ এবং দেশের বাইরে প্রতিটি মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে আমরা কাজ করছি। আমরা ম্যারেজ মিডিয়া সেবাকে আরও সহজলভ্য করতে চাই যাতে একদম নিম্নবিত্ত মানুষ থেকে শুরু করে উচ্চবিত্তরাও খুব অল্প সহজে আমাদের সেবা নিতে পারে। আমরা আমাদের সেবাকে দেশের প্রতিটি বিভাগ, জেলা, উপজেলা ও থানা পর্যায়ে পোঁছাতে চাই। এছাড়া দেশের বাইরে থাকা প্রবাসী বাংলাদেশীরা যাতে আরও সহজে পাত্র-পাত্রী খুঁজে নিতে পারেন তার জন্য আমরা বিয়েশাদী.কম নামে নতুন একটি ম্যারেজ সাইট চালু করছি। নতুন এই সাইটটি খুব শীঘ্রই চালু হবে ইনশাআল্লাহ্‌। আমাদের উদ্দেশ্য দেশের প্রতিটি থানা পর্যায়ে ন্যূনতম ১ টি করে ব্রাঞ্চ অফিস স্থাপন করা এবং বেকার তরুণ-তরুণীদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা।

সাফল্য কারো জীবনেই একদিনে আসে না। সাফল্যর জন্য প্রয়োজন সময়, মেধা আর ধৈর্য্যের।    প্রতিটি মানুষের জীবনেই ব্যর্থতা আসে, ব্যর্থতা জীবনেরই একটা অংশ। আমাদের আজকের এই সফলতার গল্পের মূল উদ্দেশ্য হলো আপনাকে ব্যর্থতার পর উঠে দাঁড়ানোর অনুপ্রেরণা দেয়া।  তাই থেমে না থেকে ধৈর্য ধরে এগিয়ে চলুন। সফলতা একদিন আসবেই।

বিয়ে সংক্রান্ত যেকোনো তথ্য, সেবা, এবং পরামর্শ পেতে যোগাযোগ করুন তাসলিমা ম্যারেজ মিডিয়ার সাথে।
কল করুনঃ+880-1972-006691 অথবা +88-01782-006615 এ।
আমাদের মেইল করুন taslima55bd@gmail.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here