.
Published: Sun, Sep 23, 2018 5:51 AM
Updated: Sat, Oct 19, 2019 5:53 PM


Matrimony sites company in Bangladesh | Taslima Marriage Media

By Admin

Matrimony sites company in Bangladesh | Taslima Marriage Media

Matrimony sites company

As a best Matrimony sites company in Bangladesh we are presenting you some facts on marriage that everybody faces during their important part of life. Especially the girls have to face a lots of situations during this time. Here is some samples. So we can hope that you will get 100% experience from the best Matrimony sites company in Dhaka.

আজকে আমাকে দেখতে এসেছে
(একটি মেয়ের না বলা কথা)

তাদের আমাকে করা প্রশ্নটি ছিলো্…
-রান্না পারো?
প্রথমে আমি অবাক হই
-আমার নাম কি?আমি কিসে পড়ি?কি করি?কি করতে পছন্দ করি?
-এইসবের চেয়ে রান্নাটাই জরুরী হয়ে গেলো?
-হ্যা,আমি রান্না পারি,অনেক প্রকারেরি রান্না জানি, তা সত্ত্বেও বললাম
-জ্বী না
-ছেলের চাচি আর মা মুখ দেখা দেখি নিয়ে ব্যস্ত।
-তাদের সাথে আসা এক মহিলা তো বলেই ফেললো
‘মেয়ের না আছে গুন,না আছে রুপ’
-আমার মামি আমাকে তাড়াতাড়ি করে অন্য রুমে নিয়ে আসলেন
-আর বকাবকি করে চলে গেলেন ছেলে পক্ষকে মাখন লাগাতে
-আমি উচু সেন্ডেল জোড়া খুলে দেখি,আমার পায়ে ফোসকা উঠে গেছে
এই সপ্তাহে চার বার ছেলে পক্ষকে হেটে দেখাতে গিয়ে পায়ের এই হাল
-আমি কালো,খাটো মেয়ে,বিয়ের বয়স পেরিয়ে যাচ্ছে
-তাও বিয়ে হচ্ছে না
-এটা নিয়ে আমার মাথা ব্যাথা না থাকলেও
-আমার মা আর মামাদের বেশ মাথা ব্যথা
-তাই আত্বীয়-স্বজন আর ঘটককে বলে রেখেছেন পাত্র দেখতে
-‘পাত্র যেমনই হোক চলবে’
-সমস্যা হলো আমিই চলি না
-আমি শিক্ষিতা,আমি রান্না জানি,সেলাই জানি,যাবতীয় সব কাজ আমি জানি
-কিন্তু আমার সবগুলো ঢাকা পড়ে গেছে
-আমি কালো আর খাটো হয়ার অপরাধে
-কিছু দ্বায়বান পুরুষ আছেন
-যারা যৌতুকের বিনিময় বিয়ে করতে চান আমাকে
খেয়াল করে দেখেছি
তাদের অনেকেরই মাথায় টাক,পেটে ভূড়ি,মোটা খাটো
-তাও তারা কত সুন্দর করেই না যৌতুক চায়??
-যেনো তাদের শারীরিক কমতি কিছুই না
-তবে আমারটা কেনো এমন হবে??
-আমি কেনো যৌতুকের বিনিমিয় হবো??
-সহজ উত্তর
-কারন আমি মেয়ে
-মেয়েরা মানুষ হয়না,তারা মেয়েই হয়
-মানুষতো পুরুষ
-সে যাই হোক
-বাদ দিয়ে দিয়েছিলাম ওসব বিশ্লেষন করা
-তবে খারাপ লাগতো ওদের জন্য রংচং মেখে নিজেকে জোকার বানাতে
-দেখতে আসবে শুনলে
-শাড়ি পড়তে হয়,পাউডার মেখে নিজেকে ফর্সা করতে হয়
-উচু সেন্ডেল পড়ে নিজেকে লম্বা করতে হয়
-এতো কিছু করেও বিয়ে হচ্ছিলো না
-তারা আসে আমি বাজারের পন্যের মত বসে থাকি
-তারা প্রশ্ন করে,উল্টেপাল্টে দেখে
-সিংগারা,মিষ্টি খায় তারপর পরে জানাবে বলে চলে যায়
-কিছু ব্যাক্তিদের সাথে আলাদা করে কথা বলতে হয়
-তারাও প্রশ্ন করে
-রান্না পারি কিনা,কাপড় ধুতে পারি কিনা,প্রেম আছে কিনা
-অনেকে আবার প্রশ্ন করে আমি ভার্জিন কিনা
-একবারে সব ঠিকঠাক
-ছেলের জিজ্ঞাসা শেষে আমি একবার জিজ্ঞাসা করেছিলাম
-আপনি ভার্জিন??
-ব্যাস
-বিয়াটা আর হলো না
-একটা মেয়ের ভার্জিনিটি প্রশ্ন করা গেলে,একটা ছেলের ভার্জিনিটী নিয়ে কেনো প্রশ্ন করা যাবে না??
-সেই প্রশ্নের উত্তর আমি আজো পাইনি
-তাদের কখনো আমার ভালো লাগেনি
-কখনো তাদের মানসিকতা,কখনোতাদের কথাবার্তা ভালো লাগেনি
-আর আমাকে তো তাদের কখনোই ভালো লাগেনি
-খাটো,কালো মেয়েকে বিয়ে করার মত মানসিকতা এদেশের মানুষের এখনো হয়নি
-আমি ভেবেই নিয়েছিলাম
-আর কখনো ভালো কিংবা সুস্থ্য মানসিকতার মানুষের সাথে বিয়ে হবে না
-তারা আসবে দেখবে আবার আমাকে কষ্ট দিয়ে চলে যাবে
-আগামীকাল আবার আমাকে দেখতে আসবে
-সে উপলক্ষে আবার আমাকে শাড়ি পড়তে হবে
-যা আমার একটুও ভালো লাগে না
-কারন আমি শাড়ি সামলাতে পারি না
-মামি আমাকে বেশ করে পাউডার মেখে দিলো
-আমি আবার উচু সেন্ডেল পড়লাম
-আর অপেক্ষা করছি,পাত্র পক্ষের প্রশ্নের উত্তর দিতে
-রান্না পারি কিনা,কাপড় ধুতে পারি কিনা,সেলাই পারি কিনা
-মানসিকভাবে প্রস্তুত হচ্ছি ঐসব প্রশ্নের উত্তর দিতে
-এমন সময় ছেলের মা বললেন
-বিয়ে তো ছেলে আর মেয়ের মধ্যে হবে
-তারাই কথা বলুক,সেটাই বরং ভালো হবে
-একটু অভাক লাগলো
-এই প্রথম মনে হয় কোনো ছেলের মা প্রশ্ন করলেন না
-যাইহোক
-আমাকে বারান্দায় পাঠানো হলো ছেলের সাথে কথা বলতে
-আমি আবারো প্রস্তুতি নিচ্ছি প্রশ্নের উত্তর দিতে
-উনি বললেন
-আচ্ছা মেয়েরা এতো উচু সেন্ডেল পড়ে কিভাবে?তাদের পায়ে ব্যাথা হয়না?
আমি চমকিয়ে তার দিকে তাকিয়ে দেখি
-উনি আমার পায়ের দিকে তাকিয়ে আছেন
-আমার উত্তর দেওয়ার আগেই উনি বলে উঠলেন
-আমার কোনো প্রশ্ন করার নেই।আপনার থাকলে করতে পারেন
-আমি যে তার প্রতিটি কথা চমকে চমকে উঠছি
-আমি বললাম,আজ পর্যন্ত্ আমাকে যতজন দেখতে এসেছিলো
-তাদের সবার প্রশ্ন ছিলো রান্না নিয়ে,সংসারের কাজকর্ম নিয়ে,অনেকে আবার ব্যাক্তিগত প্রশ্ন নিয়ে
-তাহলে আপনার কেনো নাই
-তিনি বললেন
-সব দিক দিয়ে পারফেক্ট হয়না
-সবারই কোনো না কোনো কমতি আছে
-আবার কোনো না কোনো গুন আছে
-আপনাকে দেখতে আসার আগে আপনার ছবি দেখেছিলাম
-তাতে আপনি কাজল দিয়েছিলেন চোখে
-সেইটা আমার খুভ ভালো লেগেছিলো
-আমার জন্য আপনাকে সঠীকই মনে হলো
-আর রান্না বা কাজকর্ম সবাই পারে
-না পারলে সংসার হলে আপনা আপনিই শিখে যায়
-আমিও পারি
-তাই এসব নিয়ে আমার কোনো চিন্তা নেই
-আমি তাকে আর কোনো প্রশ্ন করতে পারিনি
-তিনিও আমায় আর কোনো প্রশ্ন করেননি
-আমাদের বিয়েটা ঠিক হলো
-বিয়ের সামগ্রী আসে,আমি দেখি সব কিছু
-অভাক লাগলো একজোড়া নিচু সেন্ডেল দেখে
-সাথে একটা চিঠি পাই,সেখানে গোটা অক্ষরে লেখা ছিলো
-উচু সেন্ডেল পড়ে হাটতে কষ্ট হয়,দেখেছিলাম
-আর কষ্ট করতে হবে না
-আমার বঊ আমার পাশে আনন্দের সাথে হাটবে
-কষ্ট নিয়ে না
-আনন্দে আমার চোখে পানি চলে আসে
এতো ছেলে আমাকে দেখতে এসেছে তবে কেউই আমার কষ্টটা দেখেনি
-আমার গুনাগুন নিয়ে তাদে মাথা ব্যাথা ছিলো
-আমাকে নিয়ে না
-সবাই আমার কালো রঙ টা খেয়াল করেছে,চোখের কাজলটা না
-এই মানুষটা আমাকে সেভাবেই দেখেছে
-সেভাবেই আমি দেখতে চেয়েছি সবসময়
-দুনিয়াতে আজও এমন মানুষ আছে ??
-হ্যা
-আছে তো
-আসলেই আছে
-সবাই পারফেক্ট হয় না
-আমাদের জন্য আমাদের পারফেক্ট টাকে খুজে নিতে হয়
-চিনে নিতে হয়

As a best Matrimony sites company we want to spread the feelings about the facts to you. Hope you will get what we wanted to share.

Taslima Marriage Media
Uttara,ajompur ,Sec-07
BNS Center,
Lift o9, Room 923
01972006695
01972006691
e-mail: taslimamedia@gmail.com
web site : www.taslimamarriagemedia.com

Our Some Important Facts on best Matrimony sites company.
What happen when you get married
What happen if you get married in time
How could you find the perfect match
Matrimonial website in Bangladesh
Looking For bride in Bangladesh

 


Register now to talk with your life parner.   Do you have account?   Login  
Categories: Love Story,
This post read 544 times.
Taslima Marriage Media Blog